ব্রেকিং

x

আইসিসি টুর্নামেন্ট আয়োজনে আগ্রহী বাংলাদেশসহ ১৭ দেশ

সোমবার, ০৫ জুলাই ২০২১ | ৬:২১ অপরাহ্ণ |

আইসিসি টুর্নামেন্ট আয়োজনে আগ্রহী বাংলাদেশসহ ১৭ দেশ
ছবি: সংগৃহীত

আইসিসির ২০২৪-৩১ সালের চক্রে ছেলেদের বৈশ্বিক ইভেন্ট আয়োজনের ইচ্ছা প্রকাশ করেছে বাংলাদেশসহ ১৭টি দেশ।

এ চক্রে হবে মোট আটটি টুর্নামেন্ট। সোমবার এক বিবৃতিতে আয়োজক হতে ইচ্ছুক ১৭টি দেশের নাম প্রকাশ করে আইসিসি।

সামনের চক্রে আটটি টুর্নামেন্টের মধ্যে আছে ছেলেদের দুটি বিশ্বকাপ, চারটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ও দুটি চ্যাম্পিয়নস ট্রফি। এসব টুর্নামেন্ট আয়োজনে সদস্যদেশগুলোর কাছে প্রাথমিক প্রস্তাব চেয়েছিল আইসিসি। সেখানে জমা পড়েছে ১৭টি দেশের নাম।

বাংলাদেশ ছাড়াও এসব টুর্নামেন্ট আয়োজনে আগ্রহী দেশগুলো হলো অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, ভারত, আয়ারল্যান্ড, মালয়েশিয়া, নামিবিয়া, নিউজিল্যান্ড, ওমান, পাকিস্তান, স্কটল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা, শ্রীলঙ্কা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, সংযুক্ত আরব আমিরাত, যুক্তরাষ্ট্র ও জিম্বাবুয়ে।

পূর্ণ সদস্যদেশগুলোর মধ্যে শুধু আফগানিস্তানই আবেদন করেনি। আইসিসি জানিয়েছে, এককভাবে আয়োজনের জন্য যেমন আবেদন করেছে দেশগুলো, তেমনি আছে যৌথ প্রস্তাবও।

এর আগে বিসিবি প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান জানিয়েছিলেন, এককভাবে বিশ্বকাপ আয়োজনের প্রয়োজনীয় অবকাঠামো বাংলাদেশে নেই। তাঁরা এশিয়ার অন্য দেশগুলোর সঙ্গে যৌথভাবে আয়োজনের প্রস্তাব দেবেন।

আইসিসি টুর্নামেন্ট আয়োজনের প্রাথমিক প্রস্তাব পাওয়ার পর এখন দ্বিতীয় পর্যায়ে যাবে এই প্রক্রিয়া। সেখানে আরও বিস্তারিত প্রস্তাব দেবে আগ্রহী দেশগুলো। এরপর এ বছরের শেষে চূড়ান্ত আয়োজক ঠিক করবে আইসিসি।

১৭টি দেশের কাছ থেকে প্রস্তাব পেয়ে উচ্ছ্বসিত প্রতিক্রিয়াই দেখিয়েছেন আইসিসির ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাহী জিওফ অ্যালারডাইস। এর মাধ্যমে ক্রিকেট সম্প্রসারণের সুযোগও দেখছেন তিনি, ‘২০২৩ চক্রের পর ছেলেদের সীমিত ওভারের ইভেন্ট আয়োজনের ব্যাপারে সদস্যদের সাড়া পেয়ে আমরা খুশি। এই প্রক্রিয়া একদিকে যেমন আমাদের স্বাগতিক দেশগুলোর সংখ্যা বাড়াবে, অন্যদিকে বিশ্বজুড়ে ক্রিকেটকে ঘিরে আরও বেশি দর্শকের আগ্রহ তৈরি হবে। এর মাধ্যমে আমাদের খেলার একটা দীর্ঘমেয়াদি ছাপ রাখতে পারব।’

আইসিসি টুর্নামেন্ট আয়োজনের মাধ্যমে স্বাগতিক দেশগুলোর সামাজিক ও অর্থনৈতিক লাভ হবে বলেও উল্লেখ করেছেন অ্যালারডাইস। নতুন চক্রে অ-১৯, মেয়েদের ও টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালের আয়োজক বেছে নেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হবে এ বছরের শেষে।

Development by: webnewsdesign.com