ব্রেকিং

x

আমার চোখে তুমিই সেরা বাবা//মাধুরী দেবনাথ

রবিবার, ১৬ জুন ২০১৯ | ১০:৪৭ পূর্বাহ্ণ | 496 বার

আমার চোখে তুমিই সেরা বাবা//মাধুরী দেবনাথ

বাবার হাতেই হাতেখড়ি প্রথম পড়া-লেখা,বিশ্বটাকে প্রথম আমার বাবার চোখেই দেখা….আজ বাবা দিবস। তোমায় নিয়ে হাজারটা গল্প বলার আছে বাবা,অথচ মাথাটা খুব ফাঁকা হয়ে আসছে।তবে কি আমি অনেক বড় হয়ে গেছি বাবা?ঠিক তোমার মত,অনেক বড়!যেমনটা আমি হতে চাইতাম ছেলেবেলায়।
সবই আমার কাছে নতুন তখন,ভয় লাগত,অনেক ভয়।
তোমার আঙুল ধরে হাঁটতে হাঁটতে একদিন আমার সব ভয় কেটে গেল। আমি বাইরে যাই,আলো গায়ে মাখি,মানুষ দেখি,সবুজ দেখি,আমার ভয় লাগে না কিছু। তোমার আঙুল দুটিতে এত শক্তি,এত সাহস,আমি তখন বুঝিনি বাবা। আজ তোমার থেকে যখন দূরে থেকেছি তখন ই সেটা উপলব্ধি করতে পেরেছি। তখন কেবল মাথা ফাঁকা হয়ে আসছে।ভাবতে পারি না কিছু,আগের মতই কিছুই দেখি না,এলোমেলো লাগে খুব,উদ্দেশ্যহীন আমি যে কোথায় চলে যাচ্ছি জানি না বাবা!
বাবা,তোমার ছায়া মাথায় নিয়ে ঘুরি,ছোটবেলায় আমায় আগলে রাখা তোমার সেই হাত দুটি খুঁজি।তুমি হয়তো চেয়েছিলে,আমি হব তোমার মত,ঠিক যেমন তুমি চেয়েছিলে,যেমন তোমার ইচ্ছে ছিল।
আমার মধ্যে তোমাকে তুমি দেখতে পেলে জানি তোমার আনন্দ হত খুব। একদিন তুমি বলেছিলে জীবন নামের স্বপ্নটাকে কেমন করে ফোটাতে হয় ফুলের মত,কেমন করে পার হতে হয় বাস্তবতার কঠিন পীড়ন। আজ মনে হয় তুমিই সঠিক ছিলে, আর আমি তোমার বোকা মেয়ে বাবা!
আচ্ছা বাবা,তুমি কি তোমার রাজ্যে রাজা?আমিই কি তোমার সেই স্বপ্নে দেখা রাজকন্যা? সেই ইলতুৎমিশ কন্যা সুলতানা রাজিয়ার মত!যার কোমরে ঝুলবে খোলা তলোয়ার,অন্যায় দেখলে ঝাঁপিয়ে পড়বে যে,অসহায় মানুষদের নতুন করে বাঁচার স্বপ্ন দেখাবে আর নতুন নতুন রাজ্য করবে জয়! যার শক্তি আর গুনের সাহস দেখে সবাই বলবে,বাব্বা! মেয়েটা ঠিক ওর বাবার মত হয়েছে। তখন গর্বে ভরবে তোমার বুক!
মনে পড়ে বাবা,তোমার গায়ের ঘ্রাণ না পেলে সবই পানসে লাগতো একটা সময়।এখনও বাড়ী গেলে তোমার বিছানায় ঘুমিয়ে তোমার সেই ঘ্রাণ নেই।কোন একদিন দেখবে আমিও হয়ে গেছি ঠিক তোমারই মতো।যেমন তুমি চেয়েছিলে,স্বপ্নে আমায় দেখেছিলে।
জানি,তুমি আমার পাশে থাকবে।তোমার ছায়ার বাইরে গিয়ে শান্তি কি আর পাবো বলো?
বাবা,এখন বড় কঠিন সময়।কত দ্রুতই না সব বদলে যাচ্ছে।মহাকাশের অনেক দূরে মানুষ এখন পৌঁছে গেছে। তবুও কেন শান্তি নেই কোথাও বাবা?মানুষ গুলো কেমন যেন অন্ধকারে বাস করে আলোর দেখা নাই কোথাও।জীবন আজ মৃত্যুর খুব কাছাকাছি! কেন এমন হচ্ছে বলতে পারো বাবা?
এসব দেখে খুব ভয় লাগে।এসব দেখার জন্যেই কি আমি তোমার ছায়া ছেড়ে বাইরে এলাম?আমি তো সুখেই ছিলাম তোমার বুকে!আমিও থাকতে চাই সুখী দেশের,সুখী একটা মানুষ হয়ে,তোমার দুটি আঙুল ধরে।
আচ্ছা বাবা,আমায় নিয়ে হাজার টা ভাবনা ভাবো তুমি তাই না?কতটা ভালো আছি আমি,কতটা ভালো থাকব আমি, এসব ভাবনা খুব তাড়ায় তোমায় তাই না?

জানি,তুমি আগের মত শান্তিতে ঘুমাতে পারো না।কি যেন তোমায় তাড়িয়ে বেড়ায়?সেটা তো আমিই তাই না বাবা?
বাবা,আমি সত্যি ফিরতে চাইছি তোমার কাছে।কিন্তু চারপাশের কালো তারে জড়িয়ে যাচ্ছি প্রতিনিয়ত। আর ডুবে যাচ্ছি জলের ভেতর,গহীন অন্ধকারে।হয়তো এসব ছোটবেলার রাতে দেখা দুঃস্বপ্ন।একটু পরে দেখব আমি, আলো হাতে দাঁড়িয়ে আছো তুমি।আমার ভয় তখন ই কেটে যাবে।তোমার হাত শক্ত করে ধরে তলিয়ে যাব আবার ঘুমের দেশে।
বাবা,তোমার আঙুল ধরে,একদিন আমি জয় করব এই পৃথিবীর সকল ভয় আর তোমার যত অপূর্ণতা। এই সমাজটা হয়তো আমি বদলাতে পারবো না বাবা। তবে এই সমাজের সকল শৃঙ্খল ভেঙে থাকতে চাইবো তোমার পাশে আজীবন। আমায় তোমার বুকে আগলে রাখবে তো বাবা?তোমার ভালোবাসাকে খুব ভালোবাসি বাবা!

লেখকঃ বি,এস,এস(অনার্স), এম,এস,এস(অর্থনীতি)
এমসি কলেজ.সিলেট।

Development by: webnewsdesign.com