ব্রেকিং

x

একজন প্রতিভাবান কণ্ঠশিল্পী কেয়া বাঙালী

বৃহস্পতিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২০ | ৩:৩৬ অপরাহ্ণ | 132 বার

একজন প্রতিভাবান কণ্ঠশিল্পী কেয়া বাঙালী

একজন প্রতিভাবান কণ্ঠশিল্পী কেয়া বাঙালী। নিজের মেধা, মনন ও গায়কীর মাধ্যমে গানের জগতের নিজের একটি শক্ত অবস্থান তৈরী করতে সক্ষম হয়েছেন। বর্তমানে বাংলাদেশের জনপ্রিয় লোকসঙ্গীত শিল্পীদের মধ্যে তিনি অন্যতম। ২০১০ সালে চ্যানেল আই ক্ষুধে গানরাজ-এর মাধ্যমে তার গানের ভূবনে আনুষ্ঠানিকভাবে পথ চলা শুরু। ক্ষুধে গানরাজে তার অবস্থান ছিল টপটেনে। পরিবারের সবাই গানের সাথে যুক্ত থাকায় কেয়া বাঙালীর বয়স যখন ৪ তখন থেকে গান গাওয়া শুরু। তিনি সঙ্গীতের প্রতিটি বিষয়ে শিক্ষা অর্জন করতে চান। সেই ধারাবাহিকতায় লালন সঙ্গীতের উপরে তিনি কুষ্টিয়া লালন একাডেমি থেকে সফলতার সাথে ৫ বছরের কোর্স সম্পন্ন করেন। কেয়া বাঙালী ২০১৫ সালে মার্ক্স অলরাউন্ডারে অংশগ্রহন করে দ্বিতীয় রানার্সআপ হয়ে সবাইকে অবাক করে দিয়েছেন। রংপুর শিল্পকলা একাডেমি থেকে তিনি ভাওয়াইয়া গানের উপর কোর্স সম্পন্ন করেছেন। কেয়া বাঙালী দেশের বিভিন্ন রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানসহ দেশব্যাপী ষ্টেজ প্রোগ্রাম করে বেশ জনপ্রিয় অবস্থানে রয়েছেন। কেয়া বাঙালী বর্তমানে বাংলাদেশের প্রতিটি টেলিভিশন চ্যানেলে নিয়মিত গান করে থাকেন। দেশে-বিদেশে তার যথেষ্ট ভক্ত শ্রোতা রয়েছেন। তিনি আমেরিকা ও ইন্ডিয়াতে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে গান গেয়ে শ্রোতাদের মন জয় করেছেন। কেয়া বাঙালী বিশেষ করে লালন, লোকগান, ভাওয়াইয়া, আধুনিক, বিচ্ছেদ ও মুর্শিদী গান গেয়ে থাকেন। তিনি ব্যক্তিগতভাবে লালন এবং বাউল আব্দুল করিমের গানের প্রতি বেশি আগ্রহী। ২০১০ সাল থেকে গানের ডাকে বিভিন্ন সময়ে ঢাকা আসা যাওয়া করতেন কিন্তু ২০১৫ সাল থেকে মা-বাবা এবং ভাইকে নিয়ে স্থায়ীভাবে তিনি ঢাকায় বসবাস করেন।
সানজেনা আক্তার কেয়া বাঙালী গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া, কান্দিরপাড়া গ্রামে ২০০০ সালের ১১ ডিসেম্বর জন্মগ্রহণ করেন। দাদা আব্দুস সালাম মুন্সী ছিলেন মুর্শিদী গানের নামকরা শিল্পী। বাবা বাবু বাঙালী এবং মা লতা বাঙালী দু’জনই কন্ঠশিলী। ফলে কেয়া বাঙালী কথা শিখার সাথে গান শিখা শুরু করে দিয়েছেন। তার জন্মের এক বছর পর দাদা আব্দুস সালাম মুন্সী মারা গেলেন এরপর নানাবাড়ি চুয়াডাঙ্গায় মা-বাবার সাথে বসবাস শুরু করেন কেয়া বাঙালী। চুয়াডাঙ্গা আলোকদিয়া রোমেলা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এস এস সি পাশ করে কেয়া বাঙালী ঢাকা সরকারি সঙ্গীত কলেজে ভর্তি হয়ে সাফল্যের সাথে এইচ এস সি পাশ করেন বর্তমানে তিনি সঙ্গীত শিক্ষার উপরে অত্র কলেজে বি এ অনার্স পড়ছেন। মা-বাবার নিকট থেকে গান শিখা শুরু করলেও বর্তমানে তিনি প্রাতিষ্ঠানিক পর্যায়ে গানের উপর উচ্চতর শিক্ষা অর্জন করছেন। কেয়া বাঙালীর আকাক্সক্ষা গানের উপর ডক্টরেট ডিগ্রী অর্জন করে যথাযথভাবে গানের ভূবনে নিজেকে উৎসর্গ করবেন।

Development by: webnewsdesign.com