ব্রেকিং

x

কাব্যকথা পঞ্চম জাতীয় সাহিত্য উৎসব অনুষ্ঠিত

মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০১৯ | ১১:২৪ পূর্বাহ্ণ |

কাব্যকথা পঞ্চম জাতীয় সাহিত্য উৎসব অনুষ্ঠিত

ভাষা আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় নবিন-প্রবীণ কবি সাহিত্যিকদের মেলবন্ধন তৈরির প্রত্যয়ে এগিয়ে চলা জাতীয় সাহিত্য সংগঠন কাব্যকথা সাহিত্য পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে ১০ জুলাই বুধবার বিকেলে পাবলিক লাইব্রেরির ভিআইপি সেমিনার হল, শাহবাগ, ঢাকায় শতাধীক কবির কবিতা পাঠের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হলো পঞ্চম জাতীয় সাহিত্য উৎসব-১৯।

অনুষ্ঠানে ছিলো সাহিত্যের আলোচনা, কবিতা, ছড়া, পুঁথিপাঠ ও সম্মাননা প্রধান। সম্মানিত অতিথির আসন অলংকৃত করেন বাংলা একাডেমি পুরস্কার প্রাপ্ত কবি কাজী রোজী, প্রাক্তন এমপি। প্রধান আলোচক হিসেবে ঊপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন কাব্যকথা সাহিত্য পরিষদের প্রধান উপদেষ্টা, বাংলা একাডেমি পুরস্কার প্রাপ্ত কবি আসলাম সানী। সভাপতিত্ব করেন ৭১ ও ৭৫ এ শহীদ পরিবারের কৃতিসন্তান সংগঠনের সুযোগ্য সভাপতি আশির দশকের অন্যতম কবি ও কথাশিল্পী আবুল বাসার সেরনিয়াবাদ।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন কবি স.ম. শামসুল আলম, কবি আরিফ মঈনুদ্দীন, ছড়াশিল্পী এমআর মনজু। স্বাগত বক্তব্য রাখেন কবি ও গীতিকার এ.কিউ.এম আবু জাফর, শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সহ-সভাপতি কবি ডা. আতিয়ার রাহমান, ঘোষণাপত্র পাঠ করেন কবি প্রদীপ মিত্র, পুঁথিপাঠ করেন পুঁথিসম্রাট খ্যাত কবি ও কথাশিল্পী জালাল খান ইউসুফী, পুঁথিশিল্পী হাসিনা মমতাজ।

স্বরচিত কবিতা পাঠ করে জাতীয় সাহিত্য উৎসবকে মাতিয়ে রাখেন- ছড়াশিল্পী নূরুদ্দীন শেখ, কবি আব্দুল হক চাষী, কবি আনিস আহামেদ, কবি ও প্লানচেট লেখক কাপ্তান নূর, কবি বদরুল আহসান খান, কবি গ্রুপ ক্যাপ্টেন ইদ্রিস আলী, কবি মাজেদা রফিকুন নেছা, কবি শামীম পারভেজ,, ছড়াশিল্পী ইউসুফ রেজা, কবি আতিয়ার রহমান, কবি ডা. আতিয়ার রাহমান, কবি সাঈদ জোবায়ের, কবি তারেশ কান্তি তালুকদার, কবি পৃথ্বীশ চক্রবর্ত্তী, কবি ও অভিনেত্রী শিখা কর্মকার স্বাধীন, কবি আসিফুজ্জামান খন্দকার, কবি শাহনাজ প্রধান, কবি আনোয়ারুল ইসলাম, কবি আবুল হাসান মুহম্মদ বাশার, ছড়াশিল্পী প্রতিমা বণিক, শহিদুল ইসলাম লিটন, লিটন দাস লিকন, কবি কাজী আনিসুল হক, কবি আক্তার হোসেন মোল্লা, কবি মাশরুরা লাকী, কবি শেলিনা শেলী, কবি খান মাহমুদ, কবি তাজ ইসলাম, কবি গাজী মাজহারুল ইসলাম, কবি মোশাররফ হোসেন, কবি মশিউর রহমান ক্যাপটেন, কবি সাইফ সাদী, কবি এস আই জনি, কবি পপি রায়, কবি তানজিলা তাছনিম তিশা, কবি মামুন অপু, কবি সৈয়দ একতেদার আলী, কবি বিজন চন্দ্র দাস বিজয়, কবি আব্দুর রাজ্জাক রাজা, কবি নূর মোহাম্মদ, কবি আলম শামস, কবি কাব্য কবির, কবি আবদুল মান্নান প্রমূখ।

অনুষ্ঠানে সমাজ সেবায় বিশেষ অবদানের জন্য সংর্বধনা দেয়া হয় তাঁতীকন্যা খ্যাত একজন কবি ও সমাজসেবক শাহনাজ প্রধানকে। জাতীয় সাহিত্য উৎসবে বাংলা সাহিত্যের বিভিন্ন শাখায় সম্মানিত নয়জন গুণী কলম সৈনিককে জাতীয় সাহিত্য পদক প্রদান করা হয়। জাতীয় সাহিত্য পদকপ্রাপ্তরা হলেন বাংলা কাব্যসাহিত্যে অনবদ্য অবদানের জন্য কবি নির্মলেন্দু গুণ, নজরুল গবেষণায় বিশেষ অবদানের জন্য কবি আনোয়ারুল ইসলাম, কবিতায় অবদানের জন্য কবি সৈয়দা জোহরা আলাউদ্দিন, কাচঘর কাব্যগ্রন্থের জন্য কবি এরশাদ খান, শূন্য চিলেকোঠায় অশ্রু কাব্যগ্রন্থের জন্য কবি আবুল হাসান মুহম্মদ বাশার, বাঘের মাসি বিড়াল ছড়াগ্রন্থের জন্য ছড়াশিল্পী প্রতিমা বণিক, অন্তরদৃষ্টি সাহিত্য পত্রিকা সম্পাদনায় শহিদুল ইসলাম লিটন, অন্তরে রেখেছি কাব্যগ্রন্থের জন্য লিটন দাস লিকন। অনুষ্ঠান উপস্থাপন করেন সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক জালাল খান ইউসুফী ও কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক কবি আসিফুজ্জামান খন্দকার। (প্রেস বিজ্ঞপ্তি)

Development by: webnewsdesign.com