ব্রেকিং

x

গণভোটে ঐতিহাসিক পরিবর্তনের পথে আয়ারল্যান্ড

শনিবার, ২৬ মে ২০১৮ | ১:৫৩ অপরাহ্ণ |

গণভোটে ঐতিহাসিক পরিবর্তনের পথে আয়ারল্যান্ড

গর্ভপাত বৈধকরণ ও নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে সাংবিধানিক সংশোধনীর জন্য গণভোটের সিদ্ধান্তে আয়ারল্যান্ডে গণভোট অনুষ্ঠিত হয়েছে। ইউরোপের রক্ষণশীল রাষ্ট্রগুলোর মধ্যে আয়ারল্যান্ড অন্যতম। এ গণভোটের মাধ্যমে দেশটিতে একটি বড় ধরণের পরিবর্তন আসতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।খবর বিবিসির।

গত শুক্রবার দেশটিতে ব্যাপক সংখ্যক ভোটার গর্ভপাত ইস্যুতে ভোট দেন। দেশটির সংবিধানের অষ্টম সংশোধনীতে গর্ভপাত বাতিল সংক্রান্ত ধারা পরিবর্তনের জন্যই তারা এ গণভোটে অংশ নিয়েছেন। অষ্টম সংশোধনীতে বলা হয়, যে শিশুর এখনো জন্ম হয়নি, তারও সমান অধিকার রয়েছে। সে হিসেবে গর্ভপাত নিষিদ্ধ করা হয়েছিল।

এদিকে ভোট আয়োজনকারী এমআরবিআই জানিয়েছে, বিপুল সংখ্যক ভোটার গণভোটে ভোট দিয়েছেন। সংবিধান সংশোধন ও গর্ভপাত বৈধকরণে এর আগে কখনো এত মানুষ একসঙ্গে সমর্থন জানায়নি।

প্রাথমিক ফলাফলে জানা গেছে, গণভোটে অন্তত ৬৯ শতাংশ ভোটার গর্ভপাতের পক্ষে ভোট দিয়েছেন। অন্যদিকে মাত্র ৩২ শতাংশ ভোটার মনে করেন, গর্ভপাত বন্ধে সংবিধানে যা ধারা রয়েছে, তাই যুক্তিযুক্ত।

প্রধানমন্ত্রী লিও ভারাদকার সংবিধান সংশোধনের জন্য গণভোটের ডাক দিয়েছেন। তিনি নিজেও গর্ভপাত বৈধ বলে মনে করেন। গণভোটের ঘটনাকে তিনি বর্তমান ‘জেনারেশনের’ সিদ্ধান্ত বলে আখ্যায়িত করেছেন।

গণভোট পাস হলে আইরিশ আইনপ্রণেতারা নতুন আইন প্রণয়ন করবেন বলে আশা করা হয়, যা গর্ভধারণের প্রথম ১২ সপ্তাহের মধ্যে এবং মায়ের জীবনের ঝুঁকি থাকলে বা ভ্রƒণ রক্ষা পাওয়ার সম্ভাবনা না থাকলে পরেও গর্ভপাতের অনুমতি দেবে।

অর্থকাল/এসএ/খান

Development by: webnewsdesign.com