ব্রেকিং

x

ঢাকা ট্রিবিউনের বিজ্ঞাপন কর্মমর্তা নাজিমের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ প্রদানের জন্য হাইকোর্টের রুল

মঙ্গলবার, ২২ মে ২০১৮ | ৩:২৭ অপরাহ্ণ |

ঢাকা ট্রিবিউনের বিজ্ঞাপন কর্মমর্তা নাজিমের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ প্রদানের জন্য হাইকোর্টের রুল

দুই বাসের উগ্র রেষারেষিতে রাজধানীর যাত্রাবাড়ী ফ্লাইওভারে দুর্ঘটনায় প্রাণ হারান নাজিম। তিনি ঢাকা ট্রিবিউন পত্রিকার কর্মকর্তা ছিলেন। নাজিম উদ্দিনের পরিবারকে এক কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ কেন দেওয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট।
মঙ্গলবার (২২ মে) বিচারপতি সালমা মাসুদ চৌধুরী ও বিচাপরপতি এ কে এম জহিরুল হকের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ স্বঃপ্রণোদিত হয়ে এ রুল জারি করেন।
আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী এ বি এম গোলাম মোস্তফা।
গণমাধ্যমে প্রকাশিত ‘দুই বাসের ভয়ঙ্কর প্রতিযোগিতায় বুকের ওপর দিয়ে গেল বাস’ এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন নজরে নিয়ে আদালত এ রুল জারি করেন। রুলে স্বরাষ্ট্র সচিব, বিআরটিএ কর্তৃপক্ষসহ সংশ্লিষ্টদের এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।
পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, যাত্রাবাড়ী থেকে মোটরসাইকেল হয়ে যাচ্ছিলেন নাজিম উদ্দিন। ৩২ বছরের তরতাজা প্রাণ। গন্তব্য গুলিস্তান। মেয়র হানিফ উড়ালসড়কে উঠতেই তিনি পড়ে গেলেন দুই বাসের প্রতিযোগিতার মুখে। মঞ্জিল ও শ্রাবণ পরিবহনের দুটি বাস মরিয়া, কে কার আগে যাবে। শ্রাবণ পরিবহনের বাসটি নাজিমের মোটরসাইকেলটিকে দিল পেছন থেকে ধাক্কা। ধাক্কা খেয়ে ছিটকে সড়কে পড়ে গেলেন তিনি। নিমেষে বাসটি চলে গেল বাসটি। মেয়র হানিফ উড়ালসড়কে এভাবেই জীবনাবসান ঘটে নাজিম উদ্দিনের। নগরের বাসে বাসে বিভীষিকাময় প্রতিযোগিতার আরেক বলি তিনি।
ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী রাসেল মাহমুদ ও নাইম ইসলাম নামের দুই যুবক। তারাও মোটরসাইকেলে করে গুলিস্তানের দিকে আসছিলেন। আহত নাজিমকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান রাসেল। সেখানে তার মৃত্যু হয়। নাজিম ঢাকা ট্রিবিউনের বিজ্ঞাপন বিভাগের জ্যেষ্ঠ নির্বাহী ছিলেন।

Development by: webnewsdesign.com