ব্রেকিং

x

বাংলাদেশে ভোজ্যতেল, চিনি ও ছোলার আমদানিতে শুল্ক প্রত্যাহার

বৃহস্পতিবার, ১০ মার্চ ২০২২ | ৯:২৬ অপরাহ্ণ |

বাংলাদেশে ভোজ্যতেল, চিনি ও ছোলার আমদানিতে শুল্ক প্রত্যাহার
ফাইল ছবি

চিনি, ছোলা ও ভোজ্যতেলের মতো নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য আমদানির ওপর ভ্যাট (মূল্য সংযোজন কর) প্রত্যাহার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি ও সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির টানা দুই বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে এ কথা জানান অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

পবিত্র রমজানে যেসব পণ্যের ব্যবহার বেশি সেসব পণ্য থেকে ভ্যাট প্রত্যাহার করা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, “পবিত্র রমজান মাসের কথা বিবেচনা করে আমরা এ সিদ্ধান্ত নিয়েছি।”

তিনি আরও বলেন, “আমরা ভ্যাট প্রত্যাহার করেছি যাতে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম সাশ্রয়ী মূল্যের মধ্যে রাখা যায়।”

তবে কোন পণ্যের তালিকা থেকে ভ্যাট প্রত্যাহার করা হয়েছে সে বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানাননি তিনি।

এদিকে অর্থ মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ভোজ্যতেলে উৎপাদন পর্যায়ে ১৫ শতাংশ এবং খুচরা পর্যায়ে ৫ শতাংশ কর প্রত্যাহার করা হয়েছে।

ব্রিফিংকালে মোস্তফা কামাল আরও বলেন, সরকার করোনাভাইরাস মহামারিকালীন পরিস্থিতির মতো আবারও দেশের এক কোটি পরিবারকে ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) মাধ্যমে প্রয়োজনীয় পণ্য সরবরাহের উদ্যোগ নিয়েছে।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, স্থানীয় পর্যায়ের উৎপাদনের পাশাপাশি আন্তর্জাতিক সরবরাহ ব্যাহত হওয়ায় মানুষ মূল্যবৃদ্ধির যন্ত্রণা ভোগ করছে।

বর্তমানে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে আন্তর্জাতিক বাজার থেকে সরবরাহ ব্যাহত হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, “যুদ্ধের কারণে পরিবহন খরচ বেড়েছে এবং সরবরাহকারীরা এই পরিস্থিতির সুবিধা নিচ্ছে, যার ফলে দ্রব্যমূল্য আরও বেড়ে গেছে।”

তিনি বলেন, “জনগণের ভোগান্তি সৃষ্টিকারী ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট এবার ছাড় পাবে না। আমরা যদি টিসিবির মাধ্যমে মালামাল জনগণের কাছে পৌঁছে দিই, তাহলে সবচেয়ে ভালো কাজ হবে।”

আগামী দিনে টিসিবি আরও কার্যকর ভূমিকা পালন করবে বলেও জানান মন্ত্রী।

Development by: webnewsdesign.com