ব্রেকিং

x

ভারত সিডনি টেস্ট জিতলে সেটা হবে দেড়শ বছরের পঞ্চম ঘটনা

রবিবার, ১০ জানুয়ারি ২০২১ | ৯:৪৮ অপরাহ্ণ |

ভারত সিডনি টেস্ট জিতলে সেটা হবে দেড়শ বছরের পঞ্চম ঘটনা
সংগৃহীত ছবি

সিডনি টেস্টের জন্য ভারতের সামনে প্রায় অসম্ভব একটা লক্ষ্য দিয়েছে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া। ‘প্রায় অসম্ভব’ বলার কারণ হলো, চতুর্থ ইনিংসে চার শতাধিক রান তাড়া করে জয়ের রেকর্ড আছে। তবে মাত্র ৪বার এই ঘটনা ঘটেছে। ভারতের সামনে লক্ষ্য এখন ৪০৭ রান। আজ তারা চতুর্থ দিন শেষ করেছে ২ উইকেটে ৯৮ রান নিয়ে। যদি ম্যাচের শেষ দিনে তারা লক্ষ্যে পৌঁছতে পারে, তবে সেটা হবে ১৪৪ বছরের টেস্ট ইতিহাসের পঞ্চম ঘটনা।

৪ শতাধিক রান তাড়া করে প্রথম জয়ের ঘটনাটি ১৯৪৮ সালের। হেডিংলিতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৪০৪ রান তাড়া করে ৭ উইকেটের বিশাল জয় তুলে নেয় স্যার ডন ব্র্যাডম্যানের অস্ট্রেলিয়া। অস্ট্রেলিয়া ওপেনার আর্থার মরিস করেন ১৮২। তার সঙ্গে দ্বিতীয় উইকেটে ৩০১ রানের জুটি গড়া ব্র্যাডম্যান করেন অপরাজিত ১৭৩ রান। একবার স্টাম্পিং থেকে বেঁচে যান মরিস, আর স্যার ব্র্যাডম্যানের দুটি ক্যাচ ছাড়ে ইংলিশরা। দিনের খেলা শেষ হওয়ার ১৩ মিনিট আগে ম্যাচটি জিতে সিরিজে ৩-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায় অস্ট্রেলিয়া।

১৯৭৬ সালে স্যার ক্লাইভ লয়েডের ভয়ংকর উইন্ডিজের বিপক্ষে এই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটায় বিষেণ সিং বেদির নেতৃত্বাধীন ভারত।পোর্ট অব স্পেনে অনুষ্ঠিত সেই ম্যাচে ভারতের দুই জয়ের নায়ক সুনীল গাভাস্কার (বাঁয়ে) ও গুন্ডাপ্পা বিশ্বনাথ। দুজনের সেঞ্চুরিতে ৪০৩ রানের লক্ষ্য পেরিয়ে ৬ উইকেটে ম্যাচ জিতে ভারত। ১০২ রান করেন গাভাস্কার। আর বিশ্বনাথের সংগ্রহ ১১২। তৃতীয় উইকেটে ১০৮ রানের জুটি গড়েন বিশ্বনাথ-গাভাস্কার। পরের উইকেটে অমরনাথকে (৮৫) নিয়ে ১৫৯ রানের জুটিতে অবদান রাখেন বিশ্বনাথ।

এরপর দীর্ঘ বিরতির পর আসে একুশ শতক। ২০০৩ সালে সেন্ট জোন্সে মুখোমুখি ব্রায়ান চার্লস লারার ওয়েস্ট ইন্ডিজ আর স্টিভ ওয়াহর সর্বজয়ী অস্ট্রেলিয়া। সিরিজের চতুর্থ টেস্টে বিবর্ণ হতে থাকা উইন্ডিজের সামনে টার্গেট ৪১৮ রানের। কেউ স্বপ্নেও ভাবেনি এমন দল নিয়ে উইন্ডিজ ম্যাচটা জিতে যাবে। ৭৪ রানে ৩ উইকেট হারানো উইন্ডিজকে টেনে তোলেন রামনরেশ সারওয়ান ও শিবনারায়ন চন্দরপল (১০৪)। পঞ্চম উইকেটে দুজনে গড়েন ১০৫ রানের জুটি। শেষ দিনের শুরুতেই চন্দরপল বিদায় নিলে ৭ম উইকেট হারায় উইন্ডিজ। অজি শিবিরে তখন জয়ের উল্লাস। কিন্তু এই উল্লাস ম্লান করে দেন ওমারি ব্যাংকস (৪৭*) ও ভাসবার্ট ড্রেকস (২৭*)। ৩ উইকেটের প্রায় অবিশ্বাস্য জয় তুলে নেয় উইন্ডিজ।

টেস্টে ৪ শতাধিক রান তাড়া করে জয়ের সর্বশেষ ঘটনাটি ২০০৮ সালের। পার্থে দক্ষিণ আফ্রিকার মুখোমুখি রিকি পন্টিংয়ের অজেয় অস্ট্রেলিয়া। প্রথম ইনিংসে ৮ উইকেট নেওয়া মিচেল জনসনের ভয়ংকর পেস আক্রমণে মাত্র ২৮১ রানে অল-আউট হয় গ্রায়েম স্মিথ বাহিনী। দ্বিতীয় ইনিংসে তাদের টার্গেট দাঁড়া ৪১৪ রানের। অধিনায়ক স্মিথ করেন ১০৮ রান। তবে প্রোটিয়াদের জয়ের নায়ক এবিডি ভিলিয়ার্স। শেষ দিনে তিনি খেলেন ১৮৬ বলে ১০৬* রানের অপরাজিত ইনিংস। তাকে সঙ্গ দিয়েছিলেন জেপি ডুমিনি (৫০*)। ৬ উইকেটে ম্যাচ জিতে সিরিজে এগিয়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা।

Development by: webnewsdesign.com