ব্রেকিং

x

মানি মার্কেটের সঙ্গে শেয়ারবাজারের সমন্বয়হীনতায় কমিশনের কি করার থাকে

রবিবার, ১৯ মে ২০১৯ | ১১:৪২ পূর্বাহ্ণ | 552 বার

মানি মার্কেটের সঙ্গে শেয়ারবাজারের সমন্বয়হীনতায় কমিশনের কি করার থাকে

মানি মার্কেটের সঙ্গে সমন্বয়হীনতার অভাব তাহলে কমিশনের কি করার থাকে বলে মন্তব্য করেছেন শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান ড. খায়রুল হোসেন।

শুক্রবার (১৭ মে) রাজধানীর স্কাই সিটি হোটেলে ক্যাপিটাল মার্কেট জার্নালিস্টস ফোরামের (সিএমজেএফ) আয়োজিত দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে বিএসইসি চেয়ারম্যান খায়রুল হোসেন বলেন, শেয়ারবাজারের সঙ্গে মানি মার্কেট ও অর্থনীতির উন্নয়নের সর্ম্পক্য সরল রেখার মতো না। এই সর্ম্পক্য অত্যান্ত জটিল। তাই বলব আপনারা (সাংবাদিকেরা) সঠিকভাবে মূল্যায়ন করে দেখেন, গত কয়েক মাসের সূচকের পতনে রেগুলেটরের কোন ভূমিকা আছে কিনা। আজকে যদি ১১-১২ শতাংশ হারে ডিপোজিট চাওয়া হয়, ৪০ হাজার কোটি টাকার জায়গায় যদি ৬৪ হাজার কোটি টাকার সঞ্চয়পত্র চাওয়া হয়, যদি মানি মার্কেটের সঙ্গে সমন্বয়হীনতার অভাব থাকে, তাহলে কমিশনের কি করার থাকে। তারপরেও আমরা অনেকগুলো বিষয় অ্যাড্রেস করেছি। আমাদের কাজ হলো প্রত্যেকের মতামতকে গুরুত্ব দিয়ে বাজারকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া।

তিনি বলেন, সাংবাদিকদেরকে শক্তিশালী করার জন্য একদিকে যেমন বিনিয়োগ শিক্ষার দরকার, অন্যদিকে আইন-কানুন সর্ম্পক্যে জানানো, স্টক এক্সচেঞ্জের কি দায়িত্ব, মার্চেন্ট ব্যাংকের কি দায়িত্ব ইত্যাদি জানানো দরকার। প্রয়োজনে কমিশন থেকে ট্রেনিংয়ের ব্যবস্থা করব।

তিনি আরও বলেন, শেয়ারবাজার নিয়ে লেখালেখি করা সাংবাদিকদের বসার জায়গা নেই। তাদের জন্য অফিসের দরকার। কিন্তু আমাদের সামর্থ্য সীমিত। এক্ষেত্রে সমস্ত অংশীজনকে এগিয়ে আসার আহ্বান করব। যাতে সাংবাদিকেরা বসার জায়গা পায়। সেখানে শুধু তারা বসে গল্প করবে না, যাতে বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করতে পারে। দেশের স্বার্থে, অর্থনীতির অগ্রগতির স্বার্থে, শেয়ারবাজারের উন্নয়নের মাধ্যমে শিল্পায়নের ক্ষেত্রে তারা যাতে অগ্রনি ভূমিকা রাখতে পারে, সে ব্যাপারে সবাইকে সাংবাদিকদের পাশে এগিয়ে আসতে হবে। যাতে সত্যকে সত্য বলার মতো শুধু সৎ সাহস না, সত্যকে সত্য বলার মতো যে জ্ঞান অর্জনের দরকার, তা অর্জন করতে পারে।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) পরিচালক রকিবুর রহমান ও শেয়ারবাজার বিশ্লেষক আবু আহমেদ প্রমূখ। এছাড়া আরো উপস্থিত ছিলেন সাবেক চেয়ারম্যান ফারুক আহমেদ সিদ্দিকী, বিএসইসির কমিশনার অধ্যাপক হেলাল উদ্দিন নিজামী, অধ্যাপক স্বপন কুমার বালা, খন্দকার কামালউজ্জামান, ডিএসইর ব্যবস্থাপনা পরিচালক কেএএম মাজেদুর রহমান, সিএসইর পরিচালক ছায়েদুর রহমান, শেয়ারবাজার বিশ্লেষক আবু আহমেদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান, সিএমজেএফের প্রেসিডেন্ট হাসান ইমাম রুবেলসহ সংগঠনটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

Development by: webnewsdesign.com