ব্রেকিং

x

রাশিয়ার তেল আমদানির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে সম্মত হয়েছে জি সেভেনভুক্ত দেশগুলো

সোমবার, ০৯ মে ২০২২ | ৯:৫৬ অপরাহ্ণ |

রাশিয়ার তেল আমদানির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে সম্মত হয়েছে জি সেভেনভুক্ত দেশগুলো
সংগৃহীত ছবি

রাশিয়ার তেল আমদানির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে সম্মত হয়েছে জি সেভেনভুক্ত দেশগুলো। জি সেভেনের ভার্চুয়াল বৈঠকে এই বিষয়ে একমত হন দেশগুলোর প্রতিনিধিরা। জোটের নেতারা বলেছেন, তারা রাশিয়ার জ্বালানি তেলের উপর নির্ভরশীলতা ধাপে ধাপে কমিয়ে আনবেন।

ইউক্রেনে চলমান সংঘাতের মধ্যে রোববার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে আয়োজিত এক সভায় এ ব্যাপারে একমত হন তারা। এরই মধ্যে রাশিয়ার জ্বালানি প্রতিষ্ঠান গ্যাজপ্রমের শীর্ষ কর্মকর্তাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

জি-৭ (গ্রুপ অব সেভেন) হচ্ছে জাপান, কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র এই সাত দেশ নিয়ে গঠিত একটি সংগঠন। এ সাতটি দেশ হচ্ছে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল স্বীকৃত বিশ্বের সাতটি মূল উন্নত অর্থনীতির দেশ।

এদিন সংগঠনের বর্তমান চেয়ারম্যান জার্মানির উদ্যোগে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এক জরুরি বৈঠক যোগ দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনসহ জি-৭ সদস্য দেশগুলোর নেতারা। ইউক্রেন যুদ্ধ পরিস্থিতি আলোচনায় বৈঠকে অন্তর্ভুক্ত করা হয় ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কিকেও।

বৈঠকের পর এক একটি যৌথ বিবৃতি প্রকাশ করে জি-৭। এতে বলা হয়, আমরা রুশ জ্বালানির উপর নির্ভরশীলতা থেকে ধাপে ধাপে বেরিয়ে আসার প্রত্যয় ব্যক্ত করছি। সেই লক্ষ্যে আমরা আমাদের অংশীদারদের সঙ্গে একযোগে কাজ করব।’

এদিকে, ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলের শহর পোপাসনা থেকে পিছু হটেছে ইউক্রেনীয় সেনারা। রোববার চেচেন নেতা রামজান কাদিরভ, শহরটি দখলে নেয়ার দাবি করলেও তা অস্বীকার করেছিল ইউক্রেন। অন্যদিকে, রুশ বাহিনী ইউক্রেনে নাৎসিদের মতো নৃশংসতা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি।

ইউক্রেন সফরে গিয়ে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো কিয়েভে কানাডার দূতাবাসের কার্যক্রম আবারো চালুর ঘোষণা দিয়েছেন। ইউক্রেনে সামরিক অভিযান চালানোয় কানাডা রাশিয়ার উপর নতুন করে নিষেধাজ্ঞার প্রস্তুতি নিচ্ছে বলেও জানান ট্রুডো। তিনি বলেন, ‘রাশিয়ার প্রতিরক্ষা খাত ও সরকারের সঙ্গে সংশ্লিষ ৪০ ব্যক্তি ও ৫ প্রতিষ্ঠানের উপর নিষেধাজ্ঞা আনছি আমরা।’

এদিকে, দনেৎস্কে রুশ হামলায় ৪ জন নিহত ও ৮ জন আহত হয়েছে। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি সকালে টেলিভিশনে দেয়া এক ভাষণে পূর্ব ইউক্রেনের বিদ্রোহীনিয়ন্ত্রিত ডনবাস অঞ্চলে বিশেষ সামরিক অভিযান শুরুর নির্দেশ দেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিন। বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত পূর্ব ইউক্রেনের ওই অঞ্চলে গত আট বছরের লড়াইয়ে প্রায় ১৫ হাজার মানুষ নিহত হয়েছেন।

৭৪ দিনের যুদ্ধে ইউক্রেনের একাংশ এখন রাশিয়ার দখলে। আজ চলছে যুদ্ধের ৭৫তম দিন। কিয়েভ থেকে সরে এসে ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে শক্তি বৃদ্ধি করেছে রাশিয়া।

Development by: webnewsdesign.com