ব্রেকিং

x

রিটার্ন জমায় সময় বাড়ানোর সুযোগ নেই: এনবিআর

রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০ | ৩:১৪ অপরাহ্ণ | 13 বার

রিটার্ন জমায় সময় বাড়ানোর সুযোগ নেই: এনবিআর
ছবিঃ সংগৃহীত

চলতি বছর ৩০ নভেম্বরের পর আয়কর রিটার্নের সময়সীমা আর বাড়ছে না বলে জানিয়েছেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম।

তবে করদাতাদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে জরিমানা দিয়ে ৩০ নভেম্বরের পরও রিটার্ন দাখিল করা যাবে।

রোববার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সম্মেলন কক্ষে মাসব্যাপী করসেবা প্রদান এবং ৩০ নভেম্বর জাতীয় আয়কর দিবস উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময় ৩০ নভেম্বর পর্যন্তই থাকবে, সময় বাড়ানোর কোনো সুযোগ নেই, সময় বাড়ানো হচ্ছে না।

অর্থাৎ, যে করদাতারা এখনও আয়কর রিটার্ন জমা দেননি, তাদের সোমবারের মধ্যেই তা জমা দিতে হবে। তা না হলে ২ শতাংশ জরিমানা গুণতে হবে। সেক্ষেত্রে করদাতাদের সংশ্লিষ্ট কর অফিসে আবেদন করতে হবে।

তবে ২ শতাংশ জরিমানার বিষয়টি বাধ্যতামূলক নয়। গ্রাহক সঠিক সময়ে কেন রিটার্ন জমা দিতে পারেননি, এর যৌক্তিক কারণ দেখাতে পারলে জরিমানা মওকুফ করা হবে। কমিশনারের কাছে যদি কারণ যৌক্তিক মনে না হয়, সেক্ষেত্রে জরিমানা গুনতে হবে।

আয়কর আইন অনুযায়ী উপ-কর কমিশনার করদাতার আবেদনের প্রেক্ষিতে নির্দিষ্ট সময় শেষ হওয়ার পরও রিটার্ন দাখিলের জন্য সময় দিতে পারেন।

এ সময় এনবিআরের চেয়ারম্যান জানান, গত বছরের ২৬ নভেম্বরের চেয়ে এ বছরের ২৬ নভেম্বর পর্যন্ত রিটার্ন বেড়েছে ৬৩ হাজার ১৯৯টি। তবে একই সময়ে আয়কর কমেছে ১৯৩ কোটি টাকা।

এ বছর ২৬ নভেম্বর পর্যন্ত মোট ১৩ লাখ ২০ হাজার ৮২৫ জন রিটার্ন দাখিল করেছেন। গত বছর একই সময়ে দাখিল করা আয়কর রিটার্ন ছিল ১২ লাখ ৫৭ হাজার ৬২৬ টি। সে হিসাবে রিটার্ন বেড়েছে ৬৩ হাজার ১৯৯ টি।

এ বছর ২৬ নভেম্বর পর্যন্ত রিটার্নের সঙ্গে কর পরিশোধ হয়েছে ২ হাজার ৩৮৭ কোটি টাকা। গত বছর একই সময়ে রিটার্নের সঙ্গে কর পরিশোধ হয়েছিল ২ হাজার ৫৮০ কোটি টাকা। সে হিসাবে কর পরিশোধ কমেছে ১৯৩ কোটি টাকা।

এ বিষয়ে আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম বলেন, আয়কর রিটার্ন আরও কীভাবে সহজ করা যায়, সে কাজ চলছে। এ বছর থেকে এক পাতার রিটার্ন করা হয়েছে, যাতে করদাতা সহজে রিটার্ন দিতে পারেন।

তিনি আরও জানান, করোনা মহামারীর কারণে এ বছর আয়কর দিবসের র‌্যালি হচ্ছে না। তবে জুমে আলোচনা সভা হবে।

এ বছরের আয়কর দিবসে প্রতিপাদ্য বিষয় হচ্ছে- ‘স্বচ্ছ ও আধুনিক করসেবা প্রদানের মাধ্যমে করদাতাবান্ধব পরিবেশ নিশ্চিতকরণ’।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন- এনবিআরের সদস্য (করনীতি) আলমগীর হোসেন, সদস্য অপূর্ব কান্তি দাস, হাফিজ মোর্শেদ প্রমুখ।

Development by: webnewsdesign.com