ব্রেকিং

x

হাওরে অকালের ঢলে ভেসে গেছে ঈদের আনন্দ

সোমবার, ০২ মে ২০২২ | ৫:১৮ অপরাহ্ণ |

হাওরে অকালের ঢলে ভেসে গেছে ঈদের আনন্দ
সংগৃহীত ছবি

সুনামগঞ্জে ফসলহারা ছোট বড় ১৯ হাওরের ২০ হাজার কৃষক পরিবারে নেই ঈদের আনন্দ। কৃষক বলছেন, বেসরকারি হিসেবে ক্ষতিগ্রস্থের সংখ্যা আরো বেশি।

পরিবারের জন্য ঈদের কেনাকাটা দূরের কথা সারা বছরের খাবার নিয়েই দুশ্চিন্তায় কৃষক। কৃষি কর্মকর্তা বলছেন, ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলোয় সরকারি প্রণোদণা দ্রুত পৌঁছানোর ব্যবস্থা হচ্ছে।

এবার উজানে বৃষ্টির কারণে পাহাড়ি ঢলে সুনামগঞ্জ জেলার হাওর এলাকার বেশিরভাগ নদীর পানি বেড়ে ভেঙ্গেছে ফসল রক্ষা বাঁধ। আর তাতে ভেঙ্গেছে কৃষকের স্বপ্ন।

এপ্রিলের শুরু থেকেই শুধু সুনামগঞ্জই নয়, নেত্রকোণা ও কিশোরগঞ্জের হাওরেও পানি ঢুকে তলিয়ে দিয়েছে হাজার হাজার হেক্টর বোবরো ধান।

হাওরের ফসলরক্ষা বাঁধ ভেঙ্গে ধান পাকার আগেই ফসল হারিয়ে নিঃস্ব ২০ হাজার কৃষকের ঘরে নেই ঈদুল ফিতরের আনন্দ। বেসরকারি হিসেবে ক্ষতিগ্রস্তের সংখ্যা আরো বেশি।

পরিবারের সবাই মিলে চলছে ডুবে যাওয়া ফসল তোলা। যন্ত্রে ধান মাড়াই আর ধান শুকানো। কারণ যেটুকু রক্ষা করতে পারা, সেটুকুই লাঘব করবে কষ্ট।

এই সময়টাতে হাওরের কৃষকদের ঘরে ঘরে নবান্নের আনন্দ বিরাজ করার কথা। নতুন ধানের পিঠা-পায়েশের গন্ধে ম-ম করার কথা প্রতিটি কৃষক পরিবারে।

কিন্তু সেটিতো নেই, উল্টো ঈদের সময়েও শুকনো মুখ সেখানের প্রায় প্রতিটি পরিবারে। বোরো ধানের ভরা মৌসুমেও ঈদ আনন্দ নেই কৃষক পরিবারে।

বরং মহাজনী ঋণ পরিশোধ আর পরিবারের সারা বছরের ভরণ-পোষণ নিয়ে অজানা আতংকে হাওরের শত শত কৃষক। সেই সঙ্গে আগে পরিবারের ভরনপোষনের চিন্তাও।

হাওরের কৃষকরা জানান, অনেকে জমির ধান গোলায় তুলতে পারেননি। ধান কাটার কাজে খুব ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন তারা। অন্যদিকে প্রতিদিন রাতে হচ্ছে কালবৈশাখী ঝড়।

আরও পড়ুন: সৌদির সঙ্গে মিল রেখে ভোলার ১৪ গ্রামে ঈদ উদযাপন

এক কৃষক জানান, করোনার সময়ও হাওরের মানুষ অবহেলিত ছিল, তখন তারা ঈদ করতে পারেনি অভাবে। দিন আনে দিন খায়। ঈদ বলতে কিছু ছিল না। এখনো প্রায় একই পরিস্থিতি।

সরকারি কর্মকর্তারা হাওরে এসে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের প্রতি সংহতি জানিয়েছেন। তবে ঈদের কেনাকাটা দূরের কথা বছরের খোরাকি নিয়ে দুশ্চিন্তায় কৃষক পরিবার।

ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের তালিকা চূড়ান্ত হয়েছে জানিয়ে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর কর্মকর্তা জানান, আগামী ৩-৪ দিনের মধ্যে শতভাগ ধান কাটা শেষে হবে।

সুনামগঞ্জ জেলায় চলতি বছর দুই লাখ ২২ হাজার ৫০৮ হেক্টর জমিতে বোরো আবাদ হয়েছে।

Development by: webnewsdesign.com