ব্রেকিং

x

‘পোড়া কপাল’ বেনজেমার, যেভাবে মিস তিন বিশ্বকাপ

রবিবার, ২০ নভেম্বর ২০২২ | ৫:৪৪ অপরাহ্ণ |

‘পোড়া কপাল’ বেনজেমার, যেভাবে মিস তিন বিশ্বকাপ
সংগৃহীত ছবি

‘ইস, আমি যদি বিশ্বকাপ খেলতে পারতাম।’ দলগুলো যখন কাতারে ছুটছে এভাবেই আক্ষেপ করেছিলেন সময়ের অন্যতম সেরা ফুটবলার আর্লিং হল্যান্ড। তার নরওয়ে বিশ্বকাপে নেই। ফুটবল বিশ্বকাপ এমন এক জায়গা যেখানে পা রাখতে না পারলে তা পোড়াবেই। ওই সোনালি শিরোপা জিততে না পারলে ছুঁতেও দেওয়া হবে না!

করিম বেনজেমার এমনই দূভাগ্য কাগজে-কলমে বর্তমান সময়ের সেরা ফুটবলার (ব্যালন ডি’অর জয়ী) হয়েও ফ্রান্সের হয়ে কাতারে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপে খেলতে পারছেন না। আক্ষেপ করে বেনজেমা নিজেকে ‘কপাল পোড়া’ বলতেই পারেন! ফর্মহীনতা, বিতর্ক ও ইনজুরি মিলিয়ে এ নিয়ে তিনটি বিশ্বকাপ মিস করলেন তিনি।

করিম বেনজেমা ২০১০ সালে দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপ খেলতে পারেননি। তখন তার বয়স ছিল ২২ বছর। এক বছর আগে রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দিয়েছেন। উদীয়মান, প্রতিভাবান ওই বেনজেমাকে তৎকালীন ফ্রান্স কোচ রেমন্ড ডোমেনিক দলে নেননি।

কারণ বলা হয়েছিল, রিয়ালে তিনি ধারাবাহিক নন। প্রথম মৌসুমে ৩৩ ম্যাচে করেছিলেন ৯ গোল। কোচ তখন বলেছিলেন, ‘বেনজেমা তরুণ, প্রতিভা আছে। আমি নিশ্চিত অন্য বিশ্বকাপগুলোকে সে খেলবে।’ কোচের কথা মতো ব্রাজিলে অনুষ্ঠিত ২০১৪ বিশ্বকাপে ফ্রান্সম্যান ছিলেন। দলের নাম্বার টেন জার্সি পরেছিলেন। কোয়ার্টার ফাইনালে ১-০ গোলে জার্মানির বিপক্ষে হারলেও চ্যাম্পিয়নদের কাঁপিয়ে দিয়েছিলেন।

২০১৮ বিশ্বকাপে বেনজেমা ফ্রান্স দলে ছিলেন না। তার আগে থেকেই ‘সেক্স টেপ’ বিতর্কের জন্য জাতীয় দল থেকে তাকে বাইরে রাখা হয়েছিল। তখন তিনি ফর্মের তুঙ্গে। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল সতীর্থ ভালবুয়েনার ‘সেক্স টেপ’ নিয়ে তাকে ব্লাকমেইল করেছিলেন এবং অর্থ দাবি করেছিলেন। ওই অভিযোগ থেকে মুক্তি পাওয়ায় করিম বেনজেমা জাতীয় দলে ফেরেন। দলের নেতা হয়ে ওঠেন। কিন্তু আবার স্বপ্ন ভাঙলো তার।

করিম বেনজেমা দলের সঙ্গে কাতারে এসেছিলেন। কিন্তু ইনজুরিতে তার বিশ্বকাপ শেষ হয়ে গেছে। এর আগে ফ্রান্সের কিম্পেম্বে, ক্রিস্টোফার এনকুনকু নাম প্রত্যাহার করেছেন। রোববার নাম প্রত্যাহার করলেন বেনজেমা। বর্তমান সময়ের সেরা এই স্ট্রাইকার হৃদয় ভাঙার কথা জানিয়ে লিখেছেন, চাইলে তিনি দলের সঙ্গে থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিতে পারতেন। কিন্তু ইনজুরি নিয়ে দলের সঙ্গে ঝুলে বেড়ানো এবং অন্য একজনের সুযোগ নষ্ট করা তার কাছে অনৈতিক মনে হয়েছে।

বেনজেমার ইনজুরি ফ্রান্স দলের জন্য বড় ধাক্কা। কোচ দিদিয়ের দেশম জানিয়েছেন, তিনি হতাশ। দলের শক্তি কমে গেছে। তবু তিনি আশাবাদী, আত্মবিশ্বাসী। ফ্রান্স বিশ্বকাপ জয়ের জন্যই খেলবে। বেনজেমার ইনজুরি শুধু ফ্রান্সের জন্য নয় বিশ্বকাপের আয়োজক কাতারের জন্যও ধাক্কা। বিশ্বকাপের সেরা খেলোয়াড় না থাকলে আসরের রঙ তো খসে যাবেই।

Development by: webnewsdesign.com