ব্রেকিং

x

ক্যামেরার লেন্সে যুদ্ধ বৈশ্বিক নানা গল্প

শনিবার, ০৫ নভেম্বর ২০২২ | ৬:০৫ অপরাহ্ণ |

ক্যামেরার লেন্সে যুদ্ধ বৈশ্বিক নানা গল্প
সংগৃহীত ছবি

ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধে ক্ষতিগ্রস্ত ভবনের বিছানায় শুয়ে আছে ছোট্ট শিশুকন্যা। বাইরের হিংস্রতা-বৈরিতা তাকে খেলনা পুতুল থেকে আলাদা করতে পারেনি। আপন মনে সে প্রিয় পুতুলের সঙ্গে খেলছে। এর আগে মহামারি করোনায় স্তব্ধ হয়ে যায় পৃথিবী। এ সময় আর্জেন্টিনার ১২ বছরের আন্তোনেলা শপথ নেয়- পৃথিবী সুস্থ হলে সে স্কুলে ফিরবে। সে তার দামি ও প্রিয় লম্বা কালো চুল কেটে ফেলবে। ক্রমেই পৃথিবী সুস্থ হতে শুরু করে। ২০২১ সালে সে তার প্রিয় চুল কেটে স্কুলে ফেরে।
গতকাল শুক্রবার বিকেলে ওয়ার্ল্ড প্রেস ফটো ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় ও দৃক পিকচার লাইব্রেরির আয়োজনে ধানমন্ডির দৃক গ্যালারিতে ওয়ার্ল্ড প্রেস ফটো-২০২২ প্রদর্শনীতে ক্যামেরার লেন্সের এসব গল্প উঠে এসেছে। বিশ্বব্যাপী ভ্রাম্যমাণ প্রদর্শনীটিতে স্থান পেয়েছে ৬৫তম বার্ষিক ওয়ার্ল্ড প্রেস ফটো প্রতিযোগিতার বিজয়ী ও নির্বাচিত আলোকচিত্রগুলো।
দৃকপাঠ ভবনে উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নেদারল্যান্ডস দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত অ্যান ভ্যান লিউয়েন, ওয়ার্ল্ড প্রেস ফটো ফাউন্ডেশনের কার্যনির্বাহী পরিচালক জৌমানা এল জেইন খৌরি, আলোকচিত্রী ও প্রাক্তন ওয়ার্ল্ড প্রেস ফটো জুরি আবির আবদুল্লাহ এবং দৃক পিকচার লাইব্রেরির ব্যবস্থাপনা পরিচালক শহিদুল আলম।

প্রদর্শনীতে রাশিয়া কর্তৃক ক্রিমিয়া দখল, দোনেৎস্ক ও লুহানস্কের বিচ্ছিন্নতাবাদীদের প্রজাতন্ত্র ঘোষণা, চলতি বছরে ইউক্রেন আগ্রাসনের নানা চিত্র স্থান পেয়েছে। আছে মিয়ানমারের সামরিক সরকারবিরোধী বিক্ষোভের নানা চিত্রও। এ ছাড়া জলবায়ু পরিবর্তন, নগরায়ণের কারণে প্রকৃতির বদল, বন উজাড়করণ- এ রকম নানা উপজীব্যের ছবি স্থান পেয়েছে প্রদর্শনীতে।
বৈশ্বিক এ প্রদর্শনীতে গ্লোবাল জুরি বোর্ডের সাত সদস্যের মধ্যে বাংলাদেশ থেকে অংশ নেন ছবি মেলা আন্তর্জাতিক আলোকচিত্র উৎসবের পরিচালক তানজিম ওয়াহাব। একই সঙ্গে তিনি এশিয়া অঞ্চলের বিচারকমণ্ডলীর প্রধান হিসেবে ভূমিকা পালন করেন।
২০২২ সালের ওয়ার্ল্ড প্রেস ফটো প্রতিযোগিতাটি আফ্রিকা, এশিয়া, ইউরোপ, উত্তর এবং মধ্য আমেরিকা, দক্ষিণ আমেরিকা, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া এবং ওশেনিয়া অঞ্চলে অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিযোগিতার ৬৫তম আসরে স্বাধীন বিচারকমণ্ডলী ১৩০টি দেশের ৪ হাজার ৬৬ জন আলোকচিত্রীর ৬৪ হাজার ৮২৩টি আলোকচিত্রের মধ্য থেকে ২৩টি দেশের ২৪ জনকে বিজয়ী হিসেবে নির্বাচিত করে। এ ছাড়া ২৪ জন আঞ্চলিক বিজয়ীর চারটি বিভাগ থেকে মোট চারজন বৈশ্বিক বিজয়ীকে নির্বাচন করা হয়। আগামী ২১ নভেম্বর পর্যন্ত প্রদর্শনীটি বিকেল ৩টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

Development by: webnewsdesign.com